Ami Bangladeshi

Ami Bangladeshi

Ami Bangladeshi

বলি হউক তথাকথিত গনতন্ত্র...

সকালে সুর্য্য দেখে আগত দিনটার ভাবসাব যেমন বলে দেয়া যায়, তেমনি আওয়ামী শাষনের প্রথম তিন মাসও জাতির সামনে এমন এক আগত অপশাষনের প্রতিচ্ছবি উপস্থাপন করে, যা শুধু ভয়, ভীতি, হতাশা এবং অক্ষমতারই বীজ বপন করে। চারদিকে লাশের মিছিল, শিক্ষাংগন দখলের রনদামামা, গ্রামে-গঞ্জে চাদাবাজির লড়াই, সীমান্তে অবাধ এবং উন্মুক্ত চোরাই বানিজ্য, বিদেশ হতে বাংলাদেশীদের গলাধাক্কা, জাতিসংঘ শান্তি মিশন হতে সেনাবাহিনীর বিদায় ঘন্টা, র্দুনীতি্র অবাধ প্রবাহ, প্রশাষনকে বিদ্যুতগতিতে দলীয়করন, আইন শৃখংলার ভয়াবহ অবক্ষয়, পানি, বিদ্যুতের হাহাকার, ... অপশাসনের এসব বিবর্ন চিত্র আওয়ামী শাষনের প্রথম তিন মাসেই ফুলে ফেপে বিস্ফোরন পর্য্যায়ে চলে গেছে, অথচ সামনে পরে আছে আরও ৪ বছর ৯ মাস। যারা রাজাকার বিচারের মাঝে আওয়ামী সরকারকে গংগা চান করাতে চান তাদের জন্যে হয়ত অনেক দ্বীর্ঘশ্বাষ অপেক্ষা করছে। মেহেরপুরের ৬০/৭০ বয়স্ক ক'জন বৃদ্বের বিরুদ্বে মামলা করে যুদ্বাপরাধী বিচারের যে নাটক মঞ্চস্থ করার চেষ্টা হচ্ছে তা মুখ থুবড়ে পরতে বাধ্য, কারন বাংলাদেশের মানুষকে জজ মিয়া দিয়ে সন্তূষ্ট করার দিন শেষ হয়ে গেছে। নিজামী, আমিনী আর গোলাম আজমদের আইনের আওতায় আনতে সরকারকে সাত-সমুদ্র তের নদী পাড়ি দিতে হবে। এত সময় আওয়ামী লীগ পাবে বলে মনে হয়না। শেখ মুজিব হত্যার বিচার, গ্রেনেড হামলার বিচার, রাজাকার বিচার, ১০ট্রাক অস্ত্র আমদানীর বিচার, বিচারের এই ছেলে ভূলানো গল্প দিয়ে ছাত্রলীগ, যুবলীগ সহ আওয়ামী লীগের ছত্রছায়ায় লালিত সন্ত্রাষীদের লুটতরাজ ঢেকে রাখা সম্ভব হবেনা। বিচার প্রক্রিয়া আদালতের আইনী ব্যপার, এ নিয়ে রাজনৈতিক ফায়দালুটা নতুন এক অপরাধ।

আমাদের যাত্রা এখন অনিশ্চিতমূখী, ১৫/১৬ কোটি মানুষের অন্ন-বস্ত্র, বাসস্থান, চিকিৎসা, সূশিক্ষা এবং আইনের শাষন নিশ্চিত করার জন্যে চাই কাঠামোগত পরিবর্তন। এমন পরিবর্তনের যাতাকলে যদি আমাদের তথাকথিত গনতন্ত্র সাময়িকভাবে বলি হয়, তাতে এমন কিছু হারানোর আছে বলে মনে হয়না। আমাদের ভূলে গেলে চলবেনা, গনতন্ত্রের নামাবলি গায়ে চড়িয়ে আমরা চোরাই জাতি প্রতিযোগীতায় পরপর ৫বার বিশ্ব চ্যম্পিয়ন হয়েছিলাম। এক শেখ মুজিব আর জিয়ার নামে চোখের পানি ফেলে জাতির এই কলংক আধূনিক বিশ্বে মোচন করার কোন অবকাশ নেই।

Post new comment

  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code><b><p><h1><h2><h3><ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd><img><object><param><embed>
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Lines and paragraphs break automatically.

More information about formatting options

Image CAPTCHA
Enter the characters shown in the image.
Write in Bangla