Ami Bangladeshi

Ami Bangladeshi

Ami Bangladeshi

bangladeshi politics

সরকারী নিরাপত্তা বলয়ে দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধ!

৭১ এর যুদ্ধাপরাধীদের নিয়ে আমাদের আবেগ এখন তুঙ্গে। অনেকে বলছেন এ আবেগ নয়, গণজাগরণ, দ্বিতীয় মুক্তিযুদ্ধ। পৃথিবীর বিভিন্ন কোনায় বাসরত বাংলাদেশিরাও নেমে এসেছে রাস্তায়। নিউ ইয়র্ক, টরেন্টোর মত শহরে তুষারপাত উপেক্ষা করে অনেকে হাজির হয়েছে সমর্থন জানাতে। পৃথিবীর সবকটা মহাদেশ ধ্বনিত হয়েছে বাংলাদেশিদের কণ্ঠ, বেরিয়ে এসেছে ৪২ বছরের পুঞ্জিভূত ক্ষোভ...

জোয়ারের এখনই সময়

Rajakar in Bangladesh
গোলাম আজম অধ্যায়ই আমাদের একমাত্র পাপের অধ্যায় নয়। আমাদের পাপ গোটা শরীরে। এ পাপ নদীর পানিতে, এ পাপ রেলের বগিতে, বিদ্যুতের আলোতে, ব্যাংকে, বীমায়, শিক্ষাঙ্গনের প্রতি বাঁকে। স্বাধীনতার অর্থ কেবল রাজাকারের ফাঁসির দাবি হতে পারেনা। কজন অপরাধীর অপরাধের মাঝে থেমে থাকেনা আমাদের জীবন। আমাদের চলতে হয়। বেঁচে থাকার জন্য আমাদের নদীতে নামতে হয়, রেলে উঠতে হয়, স্কুল কলেজ বিশ্ববিদ্যালয়ে যেতে হয়। ৭১’এর হায়েনার মত এসব পথে এখন নব্য হায়েনাদের অবাধ চলাফেরা...

তের বনাম উনচল্লিশ, আমারে বাঁশ দিলে আমিও বাঁশ দিমু

Bangladeshi Politics বাস্তবতাটা অসম্ভব কিছু নয়। অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচন হলে ক্ষমতার মিউজিক্যাল চেয়ারে এ যাত্রায় বসতে পারেন তিন বারের প্রধানমন্ত্রী জনাবা খালেদা জিয়া। ধরে নেই এমনটাই ঘটল। খুব করুণ ও নির্মম ভাবে পরাজিত হলেন জনাবা শেখ হাসিনা। ক্ষমতার সমীকরণ বিজয়ী ও বিজিতদের ভাগ্য কোন দিকে ঠেলে দেয় তার ভবিষ্যত বাণী করা বাংলাদেশের কনটেক্সটে খুব একটা জটিল কাজ নয়। আমারে বাঁশ দিলে আমিও বাঁশ দিমু, সরকারী সম্পদ লুটপাটের পাশাপাশি দেশীয় রাজনীতির এটাও অবিচ্ছেদ্য সংস্কৃতি । এই দুইয়ের যৌথ মিলনের অপর নামই আমাদের রাজনীতি...

আমাদের ইতিহাস, আমাদের বোঝা

Dirty Politics in Bangladesh
৭০ দশকের শেষ দিকের একটা ঘটনা। রাশিয়ার সেন্ট পিটার্সবার্গে (লেলিনগ্রাদ)লেখাপড়া করছি। থাকি ইউনিভার্সিটির ডর্মে। ডিসেম্বর মাস। শীতের তান্ডবে বিপর্যস্ত শহরের জীবন যাত্রা। তাপমাত্রা -৪০ ডিগ্রীর উপর-নীচে উঠানামা করছে। স্কুল কলেজ বন্ধ এবং ছাত্রদের বাইরে যাওয়া নিষেধ বৈরী আবহাওয়ার কারণে। বাস করার মত যাদের দ্বিতীয় ঠিকানা ছিলনা তারা বন্দী হয়ে গেল ডর্মের চার দেয়ালে। আমিও তাদের একজন। শহরের স্থায়ী বাসিন্দাদের মতে শেষবার এমন শীত পরেছিল ১৯৪১ সালে, যে বছর হিটলার বাহিনী এ শহরকে ৮০০ দিনের জন্যে ঘেরাও অভিযান শুরু করেছিল। গায়ে একাধিক কম্বল চাপিয়ে ভেজা মুরগীর মত ঝিমুচ্ছি আর অপেক্ষা করছি কবে শেষ হবে এ তান্ডব...

শনিবারের রাজনীতি

Bangladeshi Politics
বড় হচ্ছে ভার্চুয়াল পৃথিবী। উন্নত বিশ্বের কথা না হয় বাদই দিলাম, অর্থনৈতিক অনিশ্চয়তার দেশ বাংলাদেশেও এর প্রসার বাড়ছে হু হু করে। সে দিন বোধহয় খুব একটা দুরে নয় যেদিন কোটি টাকা ব্যয়ে পল্টন ময়দানে বি-শা-ল জনসভায় মহান নেতা-নেত্রীদের রাজনৈতিক বয়ান মাঠে মারা যাওয়ার সম্ভাবনা বাস্তবে রূপ নেবে। পোস্টার, ফেস্টুন, ব্যানার, বিরামহীন প্রচারণা আর একবেলা উদরপূর্তির ফাঁদে ফেলে রাজপথে লাখ মানুষের ঢল নামানোর সংস্কৃতিতে কিছুটা হলেও ভাটা নামবে যখন বাংলাদেশের গ্রামে গঞ্জে হানা দেবে ভার্চুয়াল উৎপাত। অনেক দিন আগের একটা ঘটনা। তৃতীয় একটা ভাষায়...

আসুন প্রতিবাদ করি, প্রতিরোধ গড়ে তুলি

Bangladeshi Politics
দেশপ্রেমিক প্রবাসী ভাই ও বোনেরা।

পৃথিবীর দেশে দেশে এখন স্বৈরতন্ত্র, রাজতন্ত্র ও পরিবারতন্ত্রের উচ্ছেদ চলছে। ২০, ৩০ আর ৪০ বছরের লুটেরা শাসনের জিঞ্জির ভেংগে বেরিয়ে আসছে সাহারা মরুভূমি হতে শুরু করে লোহিত সাগরের মানুষ। বেন আলী পালিয়েছে তিউনিশিয়া হতে, মিশরের হোসনি মোবারক নিজ গৃহে বন্দী, পায়ের তলা হতে মাটি সড়ে যাচ্ছে লিবিয়ার একনায়ক গাদ্দাফির। ইয়েমেন, ওমান আর সৌদি আরব পর্যন্ত পৌছে গেছে পরিবর্তনের সুনামি। ঠিক এমনি এক প্রেক্ষাপটে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশে...

সিদ্ধান্ত নেয়ার এখনই সময়

রাজনৈতিক ফ্রন্টে ২০১১ সালের আবহাওয়া কেমন যাবে তার একটা প্রাথমিক ধারণা পাওয়া গেছে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার বক্তব্যে। বছরের প্রথম দিন ছাত্রদলের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে ভাষণ দিতে গিয়ে তিনি কোন রাখঢাকের আশ্রয় নেননি, যা বলার তা খোলামেলা ভাবে বলে দিয়েছেন। এ ঘোষণায় অবশ্য নতুন কোন রহস্য উন্মোচিত হয়নি। পারিবারিক ক্ষমতায়নের যে অসুস্থ রাজনীতি দেশকে গ্রাস করেছে খালেদা জিয়ার ভাষণ ছিল তার ধারাবাহিকতা মাত্র। আওয়ামী ঘরণার অনেকেই নেত্রীর বক্তব্যকে বাগাড়ম্বরতা বলে উড়িয়ে দিচ্ছেন এবং দেশীয় রাজনীতিতে জিয়া পরিবারের ভূমিকা ইতিহাসের অধ্যায় হিসাবে আখ্যায়িত করতে চাইছেন।বসত বাড়ি হতে উচ্ছেদ, সন্তানদ্বয়কে দেশছাড়া, কেন্দ্রীয় নেত্রীত্বের সবার গলায় মামলা এবং পুলিশ দিয়ে দলের সভাসমিতি পন্ড করার মাধ্যমে সরকার এমন একটা পরিবেশ তৈরী করেছে দল হিসাবে...

শাসন ও বিচার ব্যবস্থার মধুচন্দ্রিমা, চাঁদের অন্য পীঠ!

Bangladeshi Politics
বিশেষ করে কুরবানি ঈদের হুজুর-কাম-কসাইদের কার্যক্রম কাছ হতে লক্ষ্য করলে একটা বাস্তবতা চোখে পরতে বাধ্য, আর তা হল তাদের ক্ষিপ্রতা। দক্ষতা যাই থাকুক খোলা তরবারি হাতে ওদের চলাফেরায় থাকে উল্কার গতি। দৃশ্যটা গ্রামেগঞ্জেই দেখা যায় বেশি, পরনে রক্তাক্ত পাঞ্জাবী, কোমরে গামছার নেংটি আর হাতে ধারলো ছুরি নিয়ে এক গরু হতে আরেক গরুতে দৌড়াচ্ছে ওরা। প্রতিদ্বন্ধি হুজুর...