Ami Bangladeshi

Ami Bangladeshi

Ami Bangladeshi

১০ টাকা কেজির চাল চাইনা, আপনি 'কুত্তা' সামলান

Awami League
চালের দর ১০ টাকা। কেজি অথবা সের যে কোন হিসাবেই হোক না কেন, স্তিমিত হয়ে গেছে এ নিয়ে জনগণের প্রত্যাশা। প্রথমত, বাংলাদেশের কথা বাদ দিলেও এমন একটা দামে চাল বিক্রির অবস্থায় নেই সমাসাময়িক বিশ্ব। তেল, গ্যাস, পানি আর গতর খাটুনি এক পাল্লায় দাঁড় করিয়ে কোন ভাবেই ১০ টাকার বাটখারা দিয়ে সমান করা যাবে না হিসাবের দাঁড়িপাল্লা। এমন একটা সমীকরণ শুধু অসম্ভবই নয়, এ অলিক ও অবাস্তব। দ্বিতীয়ত, ১০ টাকায় এক কেজি চাল না হলেও না খেয়ে মরবে না এ দেশের মানুষ। মানুষ এখনো টোটাল হার মানেনি অসত্যের কাছে। মিথ্যা, ধাপ্পাবাজি আর ছলচাতুরীর ফাঁদে বার বার ধরা খেয়ে কিছুটা হলেও তারা বুঝতে শিখেছে সত্য মিথ্যার পার্থক্য। ২৫০ টাকা গো মাংসের বাজারে ১০ টাকা সের চাল, এ শুধু চাল নিয়ে চালবাজি নয়, বরং চাল উৎপাদনে জড়িত খেটে খাওয়া মানুষের জন্যে মৃত্যু ঘোষনার শামিল। শেখ হাসিনা এমন একটা ঘোষনা দিয়েই ভোট বানিজ্যে লাভবান হয়েছিলেন। নেত্রীর আগাম ঘোষনায় যারা বিশ্বাস করেছিলেন হয় তারা উনার গৃহপালিত ভৃত্য, নয়তো ভিন গ্রহে হতে উড়ে আসা এলিয়ান। হাজারা চেষ্টা করেও নেত্রী চালের দর ওয়াদাবদ্ধ দরের কাছাকাছি আনতে পারবেন এমনটা মনে করার বিশেষ কোন কারণ নেই। অর্থনীতি চলে তার নিজস্ব নিয়মে। তার সাথে যদি যোগ হয় পলিটিক্যাল ক্রাইম এর নিয়ন্ত্রণ শেখ হাসিনা অথবা খালেদা জিয়ার মত অল্প ও স্বশিক্ষিত গৃহবধূদের পক্ষে সম্ভব হওয়ার কথা নয়। তাই চালের বর্তমান দর ১০ টাকা নেই বলে দেশের মানুষ শেখ হাসিনাকে আদালতে দাঁড় করায়নি, অথবা মিথ্যা বলার অভিযোগে আন্দোলনে নামেনি। রাজনীতিতে মিথ্যাচারিতা সর্বস্বীকৃত অপরাধ, এ হতে কেউ মুক্ত নয়। তবে চালের দর নিয়ন্ত্রনে আনা সম্ভব না হলেও শেখ হাসিনার পক্ষে যে জিনিসটা নিয়ন্ত্রনে আনা সম্ভব ছিল তা হল, উনার ’কুত্তা’দের উন্মাদনা।

মালিকানা প্রকারভেদে বাংলাদেশে দুই প্রকার কুত্তার দেখা পাওয়া যায়। এক, রাস্তাঘাটের বেওয়ারিশ, দুই, গৃহপালিত। ছাত্রলীগ নামের কুত্তালীগকে উইকিপিডিয়ার কোন সংজ্ঞাতেও বেওয়ারিশ বলা যাবে না, কারণ এর মালিক জীবিত আছেন এবং তিনি আছেন বেশ বহাল তবিয়তে। কুত্তাদের নির্দিষ্ট একটা মাস থাকে যে সময়টায় তারা উন্মাদ হয়ে যায় পাশবিক ইচ্ছা চরিতার্থের লালসায়। প্রধানমন্ত্রীর কুত্তার কাফেলাও তেমনি একটা সময় পার করছে এ মুহুর্তে। তাদের লালসা কার্তিক মাসের লালসাকেও হার মানিয়ে এমন একটা উচ্চতায় ঠাঁই নিয়েছে যেখান হতে চাইলেই তারা ৫টনের সমগ্র বাংলাদেশকে যখন খুশি ধর্ষণ করতে পারে, দলিত মথিত করতে পারে, ফুটবল খেলতে পারে। এবং তারা তা করছে অতীতের সব রেকর্ড ভংগ করে। কুত্তালীগের মালিক যদিও বলছেন এ দল বেওয়ারিশ দল, কিন্তু ভুক্তভোগি মাত্রই জানে গৃহপালিত এসব কুত্তাদের উন্মাদনার শক্তি কোথায়।

তারেক আর খাম্বা মামুনদের কারণে না হয় বিদ্যুৎ খাতে উলাওডা বিবির রাজত্ব চলছে, কিন্তু প্রধানমন্ত্রী নিজ দলের ’কুত্তা’দের বৈশাখ মাসে কাতি মাসের রাজত্বের জন্যে দায়ি করবেন কাকে, ককো, ফালু, বাবর অথবা হারিছ চৌধুরীদের? বিদ্যুতের অভাবে ধান উৎপাদন ব্যহত হয়, যার প্রভাবে প্রতিশ্রুত ১০ টাকা কেজি চাল সরবারহেও আসে বাধা। এ মুহূর্তে জাতি ১০ টাকা কেজি চাল না পেয়ে যতটা না কষ্টে আছে তার চেয়ে ঢেড় কষ্টে আছে প্রধানমন্ত্রীর ’কুত্তা’দের যন্ত্রণায়। জনাবা প্রধানমন্ত্রী, আমরা ১০ টাকা কেজির চাল চাইনা, আপনি ’কুত্তা’ সামলান।

টাইটেল প্রথম আলো ব্লগের ব্লগার সাইদুর রহমানের লেখা হতে নেয়া।

Comments

সিনিয়র নেতাকে সম্মান না করায়...

Monday, 03 May 2010
বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার: সিনিয়র নেতাকে সম্মান না করায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের স্যার এ এফ রহমান হলের ছাত্রলীগের জুনিয়র কর্মী আজিমুদ্দিনকে পিটিয়ে রক্তাক্ত করা হয়েছে। শনিবার রাত ১০টার দিকে হলের ক্যান্টিনে বসাকে কেন্দ্র করে ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সভাপতি মহসিন উদ্দীনের সঙ্গে আজিমুদ্দিনের তর্ক হয়।
এ সময় সিনিয়রদের সঙ্গে ভালো ব্যবহারের জন্য আজিমুদ্দিনকে শাসান ওই নেতা। পরে এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে রাত ১১টার দিকে মহসিন উদ্দীন গ্রম্নপের জুনিয়র কর্মী সুমনের নেতৃত্বে আজিমুদ্দিনের ১০৫ নম্বর রম্নমে গিয়ে মারধর করে। ওই ঘটনায় সংগঠনটির বিশ্ববিদ্যালয় শাখা সুমনকে এক মাসের জন্য বহিষ্কার ও আজিমুদ্দিনকে শোকজ করেছে। তবে আজিমুদ্দিন জানান, তাকে রড ও লোহার পাইপ দিয়ে মারধর করেন মহসীন উদ্দীন ও তার কর্মীরা। পরে গুরম্নতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এ বিষয়ে হলর প্রভোস্ট অধ্যাপক আজিজুর রহমান বলেন, ঘটনাটি সম্পর্কে অবহিত হয়েছি। তদনেত্মর পর যথাযথ পদড়্গেপ নেয়া হবে। সহ-সভাপতি মহসিন উদ্দীন বলেন, তাকে ফাঁসানোর জন্য তার বিরম্নদ্ধে অপপ্রচার করা হচ্ছে। এ ঘটনার সঙ্গে তার কোন সংশিস্নষ্টতা নেই। ঘটনার সময় সে হলের বাইরে ছিলেন বলে তিনি দাবি করেন। ১লা ফেব্রম্নয়ারি ছাত্রলীগের দু’গ্রম্নপের সংঘর্ষে মারা যান ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের তৃতীয় বর্ষের মেধাবী ছাত্র আবু বকর ছিদ্দিক। এরপর থেকে হলটিতে চলছে অচলাবস্থা। পহেলা বৈশাখে হলের এক আবাসিক শিড়্গককে পিটিয়ে আলোচনায় আসেন ছাত্রলীগের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সভাপতি রেজা সেকান্দার। তিনি হল প্রভোস্টসহ চারজন আবাসিক শিড়্গককে ওইদিন তিনঘণ্টা অবরম্নদ্ধ করে রাখেন। হলের অবস্থা স্বাভাবিক করতে হল প্রভোস্ট অধ্যাপক আবদুস সাত্তারকে অব্যাহতিও দেয়া হয়। এরপরও চলছে একের পর এক অঘটন।
http://www.mzamin.com/index.php?option=com_content&task=view&id=12882&It...

৫৪ কোটি টাকা লোপাটের আয়োজন

Monday, 03 May 2010
লায়েকুজ্জামান, ফরিদপুর থেকে: ৫৪ কোটি টাকা লুটপাটের আয়োজন চূড়ান্ত করেছে ফরিদপুর পানি উন্নয়ন বোর্ড। এর সঙ্গে জড়িত ঠিকাদার কর্মকর্তাদের আত্মীয়স্বজন এবং আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জামায়াতের নেতারা। টেন্ডার প্রক্রিয়ায় দীর্ঘসূত্রতা করে পানির অপেক্ষায় ছিলেন পাউবো’র অসাধু কর্মকর্তারা। যাবতীয় অনিয়মকে নিয়মে পরিণত করে ইতিমধ্যেই লুটপাটের আয়োজন প্রায় সম্পন্ন করা হয়েছে। এমনকি খোদ পানিসম্পদ মন্ত্রীর লিখিত আদেশও অমান্য করেছেন তারা।

কাজ বিলিবণ্টন করা হয়েছে তাদের ইচ্ছামতো। বিগত নির্বাচনের আগে বর্তমান ক্ষমতাসীন দলের নির্বাচনী ওয়াদা ছিল ফরিদপুরে পদ্মা নদীর তীরভাঙা রোধ করা। সে প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়নে ফরিদপুর সদর আসনের এমপি শ্রমমন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন উদ্যোগ নিয়ে ফরিদপুর শহর রক্ষা বাঁধ প্রকল্পে বিশাল অঙ্কের অর্থবরাদ্দ করান। সরকারের পাঁচ বছরে ধাপে ধাপে ওই অর্থ ব্যয় হবে। রেকর্ড পত্রে দেখা যায়, ফরিদপুর শহর রক্ষা বাঁধ প্রকল্পে ব্যয়ের জন্য ২০০৯ সালের ডিসেম্বর মাসে একনেকের বৈঠকে পাস হয় ১৭৬.৫৪ কোটি টাকা। ২০০৯-১০ অর্থবছরের বরাদ্দ ৫৪.৭০ কোটি টাকা। শ্রমমন্ত্রী দ্রুত টেন্ডার প্রক্রিয়া শেষ করে কাজ সম্পন্ন করার নির্দেশ দিলেও কয়েকজন ঠিকাদারের সঙ্গে যোগসাজশে পানি উন্নয়ন বোর্ডের কয়েকজন কর্মকর্তা গড়িমসি করে অহেতুক সময় নষ্ট করে পদ্মা নদীতে পানি বৃদ্ধির জন্য অপেক্ষা করেন। টেন্ডার সংশ্লিষ্ট ডকুমেন্টে দেখা যায়, শহর রক্ষা বাঁধের পাড়ের ১২.৫ মিটার পাড়কে সিসি ব্লক দ্বারা আবৃত করতে হবে। ওই ১২.৫ মিটার হচ্ছে নদীর পানির নিম্ন সমতল (লোয়েস্ট ওয়াটার লেভেল) থেকে পাড়ের উপর পর্যন্ত। বর্তমান টেন্ডারে কাজ হওয়ার কথা ফরিদপুর শহরের ধলার মোড় থেকে কুমার নদী পর্যন্ত ১১শ’ মিটার। এছাড়া আলীয়াবাদ ইউনিয়নের গদাধর ডাঙ্গীতে ১ কিলোমিটার পাড়ের কাজও হওয়ার কথা। দ্রুত নদীভাঙন রোধ করতে ডিসেম্বর মাসে একনেকে প্রকল্প পাসের পর গত জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহে টেন্ডার আহ্বান করা হলেও অনিয়মের মাধ্যমে জিও ব্যাগের ১৮ কোটি টাকার কাজের ঠিকাদার বাছাই করা হয়েছে। বাকি ৩৬ কোটি টাকার সিসি ব্লকের কাজের ঠিকাদার গোপনে চূড়ান্ত করা হলেও তা প্রকাশ করা হয়নি আরও অনিয়মকে বৈধতা দিতে।

এদিকে, নিজস্ব ঠিকাদারদের কাজ দিতে গিয়ে সময়ক্ষেপণের কারণে পদ্মা নদীতে পানি বৃদ্ধি পেয়েছে এবং প্রতিদিনই তা আরও বাড়ছে। সরজমিন এলাকায় গিয়ে দেখা যায়, বর্তমানে নদী তীরের সিসি ব্লক প্লেসের ১২.৫ মিটার পাড়ের ১০ মিটারই পানিতে তলিয়ে গেছে, বাকি আছে মাত্র ২.৫ মিটার। গত ২৮শে এপ্রিলের রেকর্ডে দেখা যায়, কাজ করার ওই স্থানগুলোতে পানির লেভেল হচ্ছে ৫.৫২ মিটার। অথচ এখানে পানির শূন্য লেভেল থেকে কাজ করার কথা। পানি উন্নয়ন বোর্ডের দক্ষিণাঞ্চলীয় পরিমাপ বিভাগের কর্মকর্তা রকিবউদ্দিন জানান, তাদের রেকর্ড অনুসারে প্রতিদিন পদ্মা নদীতে পানি বাড়ছে এবং পাড়ের ১২.৫ মিটারের মধ্যে মাত্র ২.৫ মিটার জাগানো থাকলেও পানি উন্নয়ন বোর্ডের কর্তাব্যক্তিরা কি কারণে ঠিকাদার নির্বাচন করে বর্ষার ভেতরেই কাজ শেষ করতে আগ্রহী তার পেছনের কারণ জানা যায় টেন্ডার সংক্রান্ত জটিলতার বিষয় খুঁজলেই। দেখা যায়, দুই ধাপে বিভক্ত ৫৪ কোটি টাকার কাজের প্রথম ধাপ হচ্ছে নদীতে জিও ব্যাগ ডাম্পিং করা। গত ১৮শে জানুয়ারি জিও ব্যাগের ১৮ কোটি টাকার টেন্ডারের দরপত্র দাখিলের দিনে জনৈক আওয়ামী লীগ নেতার ব্যাবসায়ী প্রতিষ্ঠান বিজে কে চার গ্রুপে বিভক্ত চারটি কাজ দিয়ে বাকি দরপত্র দাখিলকারীদের যোগ্যতা থাকা এবং নিম্ন দরদাতা হওয়া সত্ত্বেও বাতিল করা হয়। সূত্র জানায়, ওই প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে গোপন ব্যবসায়ী অংশীদারিত্ব আছে পাউবো’র দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় প্রধান প্রকৌশলী এবং ওই কাজের প্রকল্প পরিচালক শহিদুর রহমানের। রেকর্ডপত্রে দেখা যায়, ওই কাজের টেন্ডারে অনিয়ম এবং স্বজনপ্রীতির অভিযোগে খোদ পানি সম্পদমন্ত্রী রমেশচন্দ্র সেন সচিবকে জরুরি ভিত্তিতে ব্যবস্থা গ্রহণের নির্দেশ দেন ১৫ই মার্চ। কিন্তু কোন ব্যবস্থা নেয়া হয়নি।

ওই কাজের সংক্ষুব্ধ দরপত্র দাখিলকারী প্রতিষ্ঠান ডার্ড প্রাইভেট লি. এবং মেসার্স ফারজানা খানের পক্ষে সুপ্রিম কোর্টের সিনিয়র এডভোকেট আবদুর রাজ্জাক খান সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের উকিল নোটিশ দেন ২১শে এপ্রিল। ওই কাজের অপর অংশ ১১ নম্বর নোটিশের ৬ গ্রুপের ৩৬ কোটি টাকার কাজের ঠিকাদার বাছাইয়ের কাজটি অতিগোপনে ব্যাপক অনিয়ম এবং জালিয়াতির মাধ্যমে সম্পন্ন করা হয়েছে বলে নির্ভরযোগ্য সূত্রে জানা গেছে। সূত্র আরও জানায়, ওই টেন্ডারে ভিন্ন ঠিকাদারের নামে কাজ দেয়া হচ্ছে পানি সম্পদ মন্ত্রণালয়ের এক জাঁদরেল কর্মকর্তার ভাইকে। তাকে কাজ দেয়া হচ্ছে রাজশাহীর এক জামায়াত নেতার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের নামে। অন্য একটি প্রতিষ্ঠানের নামে কাজ দেয়া হচ্ছে পাউবোর দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় জোনের প্রধান প্রকৌশলী শহিদুর রহমানের ভাইকে। ত্রিশ লাখ টাকা নিয়ে কাজ দেয়া হচ্ছে ফরিদপুরের যোগ্যতাহীন এক বিএনপি নেতার ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে । একইভাবে সর্বনিম্ন দরদাতা, বা ২য়, ৩য়, ৪র্থ, ৫ম দরদাতা ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে বাদ দিয়ে দরপত্রে উল্লিখিত চাহিদা মোতাবেক যোগ্যতা না থাকা সত্ত্বেও কেবলমাত্র বিশাল অঙ্কের আলোআঁধারির কর্মের কারণে কাজ দেয়া হচ্ছে এক ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে। বর্তমানে পদ্মা নদীতে ব্যাপক পানি বৃদ্ধি পেয়ে নদীর পাড় তলিয়ে সামান্য ১২.৫ মিটারের স্থলে মাত্র ১.৫ মিটার জাগানো থাকার পরও পাউবোর কর্মকর্তারা সরকারি ওই ৫৪ কোটি টাকা নদীগর্ভে তলিয়ে গেছে দেখিয়ে লুটপাটের আয়োজন প্রায় চূড়ান্ত করে ফেলেছে। ইতিপূর্বে বিগত বিএনপি সরকারের আমলে দেখা গেছে, পাউবো এক শ্রেণীর অসাধু কর্মকর্তারা ঠিকাদারদের সঙ্গে মিলে পদ্মা নদীতে পানি বৃদ্ধির সময় কাজ করিয়ে সরকারের কোটি কোটি টাকা লোপাট করেছে কিন্তু ফরিদপুরের মানুষের কোন উপকার হয়নি। নদীর পাড় ভাঙা বন্ধ হয়নি। প্রতিবছরে ঘরবাড়ি হারা হয়েছে হাজার হাজার মানুষ। এলাকার সচেতন মহল বলছে, যে কোনভাবে ওই লুটপাট বন্ধ করা না গেলে ক্ষতি হবে ফরিদপুরবাসীর কিন্তু পকেট ভরে এখান থেকে টাকা নিয়ে কেটে পড়বে পাউবোর কর্মকর্তারা। ফরিদপুর শহর রক্ষা বাঁধ প্রকল্পের প্রকল্প কর্মকর্তা এবং পানি উন্নয়ন বোর্ডের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় জোনের প্রধান প্রকৌশলী শহিদুর রহমান বলেন, না, প্রকল্প বাস্তবায়নে কোন ধীরগতি হয়নি। তার কাছে জানতে চাওয়া হয় ডিসেম্বর মাসে একনেকে প্রকল্প পাস হওয়ার পরও নদীভাঙনের মতো গুরুত্বপূর্ণ কাজে এখনও কাজ শুরু হলো না কি কারণে? জবাবে তিনি বলেন, একনেকে পাস হলেই হয় না বাজেট পাস হতে হয়।

বাজেট পাস হয়েছে মাত্র সাত কোটি টাকা। প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এখন নদীতে পানি বৃদ্ধি পেলেও ঠিকারদাররা তাদের ম্যানুফেকচারিং-এর কাজ করে রাখবে। তার কাছে জানতে চাওয়া হয় জিও ব্যাগ ডাম্পিং-এর কাজ পাওয়া প্রতিষ্ঠান বিজেএ-র সঙ্গে আপনার কোন ব্যবসায়ী অংশীদারিত্ব আছে কিনা? তিনি বলেন, যদি কাগজ কলমে থাকে তাহলে আছে। প্রধান প্রকৌশলীর কাছে জানতে চাওয়া হয়, শোনা যাচ্ছে আপনার ভাই কাজ পাচ্ছে? তিনি বলেন, কেন আমার ভাইয়ের কি ঠিকাদারি করা নিষেধ নাকি?
http://www.mzamin.com/index.php?option=com_content&task=view&id=12945&It...

রেলের স্লিপার কেটে, বাস ভাঙচুর করে ছাত্রলীগের আতঙ্ক সৃষ্টি

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরে আসতে না আসতেই আবারো নাশকতা চালিয়েছে ছাত্রলীগ। শাটল ট্রেন ও বাস না চলাচল করতে তারা গতকাল রেলের স্লিপার কেটে নিয়ে যায় ও একটি বাস ভাঙচুর করে। তারপরও ট্রেন ও বাস চলাচল অব্যাহত ছিল। গতকাল ভোর রাতে ছাত্রলীগের বেশ ক’জন নেতাকর্মী নগরীর বড়দীঘির পাড়ে রেললাইনের একটি স্লিপারের দেড় থেকে দুই ফুট কেটে নিয়ে যায়। তবে সকালে রেলের স্লিপার কাটা দেখে রেল কর্তৃপক্ষ সাথে সাথে তা মেরামতে নেমে পড়ে। সকাল ৯টার দিকে আবার শাটল ট্রেন চলাচল শুরু হয়। ষোলশহর রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার শওকত আলী চৌধুরী রেলের স্লিপার কাটার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এ দিকে গতকাল সকাল ৮টার দিকে ছাত্রছাত্রীদের বহনকারী বিশ্ববিদ্যালয় বাস তরী সার্ভিসে হামলা চালায় ছাত্রলীগ। তারা নগরীর ষোলশহরের ফসিল সিএনজি ফিলিং স্টেশনের সামনে একটি তরী বাস ভাঙচুর করে। তরী মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক রায়হান তরী এ খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এ ব্যাপারে থানায় মামলা করতে গেলেও থানা পুলিশ মামলা গ্রহণ করেনি।

সূত্র: দৈনিক নয়া দিগন্ত

কিছু খন্ডচিত্র

বগুড়ায় ছাত্রলীগের সেই দুই ক্যাডার গ্রেপ্তার
তারিখ: ০১-০৫-২০১০

বগুড়ার সরকারি আযিযুল হক কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে ও সশস্ত্র মহড়ায় অংশ নেওয়া সেই অস্ত্রধারী দুই ছাত্রলীগ ক্যাডারকে শনাক্ত করে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। প্রথম আলোসহ বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে গত ২৬ এপ্রিল সশস্ত্র মহড়ার ছবি প্রকাশিত হয়।

সূত্র: প্রথম আলো

ছাত্রলীগের কর্মকান্ডে রাবি শিক্ষক সমিতির উদ্বেগ
তারিখ: এপ্রিল ২৯, ২০১০

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়সহ দেশের অধিকাংশ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগের নেতিবাচক কর্মকাণ্ডে গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে এবার বিবৃতি দিয়েছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। এর আগে একই কারণে বিবৃতি দিয়েছিলেন রাবির ১৫ জন শিক্ষাবিদ ও শিক্ষক। ছাত্রলীগের এসব নেতিবাচক কর্মকাণ্ডে সরকারের ভাবমূর্তি মারাত্মকভাবে ক্ষুণœ হচ্ছে উল্লেখ করে অবিলম্বে এসব ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থান নিতে সরকারের প্রতি আহবান জানানো হয়।

সূত্র: দৈনিক ইত্তেফাক

খুলনায় আ.লীগ নেতার বিরুদ্ধে টেন্ডারবাজির অভিযোগ, সংঘর্ষ
তারিখ: ২৮-০৪-২০১০

খুলনার শেখ আবু নাসের বিশেষায়িত হাসপাতালের জনবল সরবরাহে আওয়ামী লীগ নেতার বিরুদ্ধে টেন্ডারবাজির অভিযোগ উঠেছে। গতকাল মঙ্গলবার দরপত্রের শিডিউল জমা দেওয়ার শেষ দিনে তাঁর নেতৃত্বে একটি পক্ষ অন্যান্য ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানকে শিডিউল জমা দিতে বাধা দেয় এবং এ নিয়ে সংঘর্ষে কমপক্ষে তিনজন আহত হয়।

সূত্র: প্রথম আলো

দখলবিরোধী মিছিলে যুবলীগের হামলা
তারিখ: ২৭-০৪-২০১০

নারায়ণগঞ্জে পৌরসভার জায়গা দখলের প্রতিবাদে স্থানীয় একটি সামাজিক সংগঠনের বের করা মিছিলে যুবলীগের নেতা-কর্মীরা হামলা চালিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এতে সাংবাদিক, খেলোয়াড়সহ অন্তত ২০ জন আহত হয়েছেন। এ সময় নারায়ণগঞ্জ-আদমজী-ডেমরা সড়কে প্রায় আধা ঘণ্টা যান চলাচল বন্ধ ছিল। সামাজিক সংগঠন শাপলা ক্রীড়াচক্রের কর্মকর্তারা অভিযোগ করেন, তাঁদের ওপর হামলা চালালেও পুলিশ যুবলীগের পক্ষ নেয়।

সূত্র: প্রথম আলো

ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় গ্রেপ্তার ৩
তারিখ: ২৬-০৪-২০১০

বগুড়ার সরকারি আযিযুল হক কলেজে গতকাল রোববার ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষের ঘটনায় তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকাল রাতেই পুলিশ তাদের সেয়ুজগাড়ি এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করে। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন এমদাদুল হক, রাসেল মাহমুদ ও রাসেল মিয়া। এঁদের মধ্যে এমদাদুল ও রাসেল মাহমুদ কলেজ ছাত্রলীগের কর্মী। আর রাসেল মিয়া বহিরাগত বলে পুলিশ জানিয়েছে।

সূত্র: প্রথম আলো

রাজশাহীতে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ছাত্রলীগের প্রতিপক্ষ ছাত্রলীগ!
তারিখ: ২৪-০৪-২০১০

রাজশাহীতে গত কয়েক মাসে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ছাত্রলীগের বিবদমান বিভিন্ন পক্ষের মধ্যে পাল্টাপাল্টি হামলা-সংঘর্ষের ঘটনা ঘটেছে। এসব ঘটনায় সংগঠনের নেতা-কর্মীদের মধ্যে পাল্টাপাল্টি অভিযোগও রয়েছে। এ পরিস্থিতিতে ছাত্রলীগ যে ছাত্রলীগেরই প্রতিপক্ষ, তা স্পষ্ট হয়ে উঠেছে।

সূত্র: প্রথম আলো

ছাত্রলীগের অবরোধ শুরু, শিক্ষকদের বাসে আগুন
তারিখ: ২০-০৪-২০১০

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের রেলস্টেশন চত্বরে সন্ত্রাসীদের ছুরিকাঘাতে মো. আসাদুজ্জামান নিহত হওয়ার ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ঘোষিত তিন দিন ক্লাস ও পরীক্ষা স্থগিত এবং শাটল ট্রেন বন্ধ রাখার কর্মসূচি গতকাল সোমবার শেষ হয়েছে। আজ মঙ্গলবার থেকে ক্লাস, পরীক্ষা ও শাটল ট্রেন চলাচল শুরু হওয়ার কথা থাকলেও ছাত্রলীগের ডাকা অনির্দিষ্টকালের অবরোধ কর্মসূচির কারণে কোনো ক্লাস বা পরীক্ষা এখনো শুরু হয়নি, সব স্থবির হয়ে আছে।

সূত্র: প্রথম আলো

হত্যাসহ নানা অপরাধে জড়িত ৩৫ ছাত্র
তারিখ: ১৯-০৪-২০১০

ছাত্র নামধারী ৩৫-৪০ জন সন্ত্রাসীর হাতে জিম্মি হয়ে আছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। এঁদের মধ্যে ১৭ জনের বিরুদ্ধে দেড় বছরে হাটহাজারী ও চট্টগ্রাম জিআরপি (রেলওয়ে) থানায় ১৪টি মামলা হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র হত্যা, ছিনতাই, চাঁদাবাজি, মেয়েদের উত্ত্যক্ত করা, শাটল ট্রেনের বগি দখলে রাখা, মাদক ব্যবহার ও শিক্ষকদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারসহ বিস্তর অভিযোগ তাঁদের বিরুদ্ধে। এঁদের মধ্যে ১৬ জনকে বিভিন্ন মেয়াদে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে।

সূত্র: প্রথম আলো

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় পয়লা বৈশাখে বেশ কিছু তরুণী লাঞ্ছিত
তারিখ: ১৪-০৪-২০১০

পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে আয়োজিত কনসার্টে গতকাল বুধবার দিনভর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় বখাটে যুবকদের হাতে বেশ কয়েকজন তরুণী লাঞ্ছিত হয়েছেন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবনসংলগ্ন মল, চারুকলা ইনস্টিটিউট ও বাংলা একাডেমী এলাকায় এসব ঘটনা ঘটে।

সূত্র: প্রথম আলো

ফারুককে হত্যা করিয়েছেন টেন্ডার চক্রের নেতারা
তারিখ: ১০-০৪-২০১০

পঞ্চগড়ে দরপত্র দাখিল নিয়ে যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষে ছাত্রলীগের নেতা ফারুক হোসেন নিহত হওয়ার ঘটনায় মামলা হয়েছে। ফারুকের বড় ভাই মো. ফজলুল হক গতকাল শুক্রবার ১৬ জনের বিরুদ্ধে সদর থানায় মামলাটি করেন।

সূত্র: প্রথম আলো

অভিযোগ, সন্ত্রাসীরা আওয়ামী লীগ সমর্থিত
কামরাঙ্গীরচরে মার্কেটে হামলা অগ্নিসংযোগ, লুটপাট

তারিখ: ১০-০৪-২০১০

রাজধানীর কামরাঙ্গীরচরে সন্ত্রাসীরা গতকাল শুক্রবার সকালে একটি মার্কেটে ভাঙচুর, লুটপাট চালিয়ে অগ্নিসংযোগ করেছে। এই সন্ত্রাসীরা আওয়ামী লীগ সমর্থিত বলে অভিযোগ করেছেন মার্কেটের মালিক ও ব্যবসায়ীরা। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সকাল পৌনে ১০টার দিকে রাজধানীর লালবাগ ও কামরাঙ্গীরচরের সীমানানির্দেশক খালের ঢালে অবস্থিত মাহবুব মার্কেটে অর্ধশতাধিক যুবক রড, লাঠি, হকিস্টিক, রামদা নিয়ে হামলা চালায়। তারা দোকান ও কারখানায় ভাঙচুর ও লুটপাট চালিয়ে তেল ঢেলে অগ্নিসংযোগ করে।

সূত্র: প্রথম আলো


দিনাজপুরে ১৪ কোটি টাকার দরপত্র নিয়ে দুই পক্ষে হাঙ্গামা
পঞ্চগড়ে ছাত্রলীগ নেতা খুন

তারিখ: ০৯-০৪-২০১০

দরপত্র দাখিল নিয়ে পঞ্চগড় শহরে গতকাল বৃহস্পতিবার যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের সংঘর্ষে ছাত্রলীগের নেতা ফারুক হোসেন নিহত হয়েছেন। সংঘর্ষে আহত হয়েছেন উভয় পক্ষের কমপক্ষে ১১ জন। এ ঘটনায় ফারুকের সমর্থক ছাত্রলীগ ও যুবলীগের একাংশ পঞ্চগড়-তেঁতুলিয়া মহাসড়ক অবরোধ করে।

সূত্র: প্রথম আলো

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ
তারিখ: ০৬-০৪-২০১০

খুলনা বিশ্ববিদ্যালয়ে গতকাল সোমবার রাতে প্রথম আলোর স্থানীয় আলোকচিত্রী শাহ নেওয়াজকে ধাওয়া করা এবং ক্যাম্পাস থেকে বের হতে না দেওয়ার জের ধরে ছাত্র-পুলিশ সংঘর্ষ ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। এ পরিস্থিতিতে কর্তৃপক্ষ অনির্দিষ্টকালের জন্য বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ ঘোষণা করেছে। শিক্ষার্থীরা আজ সকাল সাড়ে ছয়টার মধ্যে হল ত্যাগ করেছেন।

সূত্র: প্রথম আলো

ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীদের হামলায় দুই সাংবাদিক আহত
তারিখ: ০৪-০৪-২০১০

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় দুই সাংবাদিককে মারধর করেছেন ছাত্রলীগ নেতা-কর্মীরা। আজ রোববার রাত সাড়ে আটটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। আহত সাংবাদিকেরা হলেন সাপ্তাহিক-এর নিজস্ব প্রতিবেদক আনিস রায়হান ও সাপ্তাহিক বুধবার-এর নিজস্ব প্রতিবেদক আহমেদ ফয়েজ। আহত অবস্থায় দুই সাংবাদিককে প্রথমে বঙ্গবন্ধু মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসাপাতাল এবং পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

সূত্র: প্রথম আলো

যশোরে আ.লীগ নেতার হুমকির পর চার দিন স্কুল বন্ধ
তারিখ: ০৪-০৪-২০১০

‘আমি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সেক্রেটারি। আমাকে না জানিয়ে কী করে স্কুলের ম্যানেজিং কমিটি করা হলো? তিন দিনের মধ্যে কমিটি ভেঙে দিয়ে আমাদের দলীয় লোক ঢোকাবি, নয়তো ছুরি মেরে ভুঁড়ি নামিয়ে দেব।’ যশোরের বাঘারপাড়া উপজেলার বন্দবিলা ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক জিয়াউর রহমান খাজুরা বাজারের টিপিএম রেজিস্টার্ড প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক আজিজুর রহমানকে এভাবে হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিজের পছন্দের এক ব্যক্তিকে বিদ্যালয়ের পরিচালনা কমিটিতে জায়গা না দেওয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে তিনি হুমকি দেন বলে প্রধান শিক্ষক আজিজুর রহমান অভিযোগ করেন।

সূত্র: প্রথম আলো

যানবাহন চলাচলে ছাত্রলীগের বাধা, ছাত্রের মৃতদেহ উদ্ধার
তারিখ: ২৯-০৩-২০১০

ছাত্রলীগের অবরোধের কারণে আজ সোমবার সকাল থেকে চট্টগ্রাম শহর থেকে কোনো বাস বা ট্রেন চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে যেতে পারেনি। স্থানীয় কয়েকজন যুবক ছাত্রলীগের চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতা জাহিদুল ইসলাম ওরফে জুয়েলকে বেধড়ক মারধর করেন গতকাল রোববার। সেই ঘটনার প্রতিবাদে ছাত্রলীগের কর্মীরা এই অবরোধ সৃষ্টি করে। ফলে শিক্ষার্থীদের চরম ভোগান্তির মধ্যে পড়তে হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ে কোনো ক্লাস হচ্ছে না। তবে পূর্বনির্ধারিত পরীক্ষাগুলো যথারীতি অনুষ্ঠিত হচ্ছে বলে জানা যায়।

সূত্র: প্রথম আলো

সাজেদার বিরুদ্ধে রাজউকের প্লট বরাদ্দের মামলা খারিজ
তারিখ: ২৪-০৩-২০১০

আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সংসদীয় উপনেতা সৈয়দা সাজেদা চৌধুরীর বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য দিয়ে রাজউকের কাছ থেকে প্লট বরাদ্দ পাওয়ার অভিযোগে দায়ের করা মামলাটি হাইকোর্ট খারিজ করে দিয়েছে।

সূত্র: প্রথম আলো

কোকো ও ফালুর কোম্পানি বিক্রি, কিনছে সালমানের বেক্সিমকো
তারিখ: ২২-০৩-২০১০

ঢাকা-সাংহাই সিরামকিস নামে বহুল আলোচিত একটি প্রতিষ্ঠান অধিগ্রহণ করছে বেক্সিমকো লিমিটেড। সাবেক প্রধানমন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার ছোট ছেলে আরাফাত রহমান কোকো এবং সাবেক প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক সচিব মোসাদ্দেক আলী ফালুর সিংহভাগ বিনিয়োগে গঠিত কোম্পানি এই ঢাকা-সাংহাই সিরামিকস।

এই কোম্পানিরই শতভাগ মালিকানা অধিগ্রহণ করছে আওয়ামী লীগ সভানেত্রী শেখ হাসিনার বেসরকারি খাতবিষয়ক উপদেষ্টা সালমান এফ রহমানের বেক্সিমকো লিমিটেড। পুঁজিবাজারে এটিই এখন অন্যতম আলোচিত খবর।

সূত্র: প্রথম আলো

ছাত্রলীগের সংঘর্ষের নেপথ্যে সিট দখল ও চাঁদা-বাণিজ্য
তারিখ: ১৮-০৩-২০১০

ঢাকা কলেজের দক্ষিণায়ন ছাত্রাবাসের (নতুন হল) নিয়ন্ত্রণ নিয়েই মঙ্গলবার রাতে ছাত্রলীগের দুই পক্ষে সংঘর্ষ হয়। কলেজের একাধিক নেতা এবং নিউমার্কেট থানার পুলিশ বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেছেন, কলেজের অধিকাংশ হলের নিয়ন্ত্রণ যাদের হাতে থাকে, তারাই নিউমার্কেট ও আশপাশের এলাকার চাঁদা-বাণিজ্য নিয়ন্ত্রণ করে। ফলে উভয় পক্ষই এই নতুন ছাত্রাবাসটির নিয়ন্ত্রণ ও ক্যাম্পাসে একক আধিপত্য প্রতিষ্ঠায় মরিয়া ছিল। কেন্দ্রীয় নেতারাও যে যাঁর মতো করে একেক পক্ষকে সমর্থন দিচ্ছেন।

সূত্র: প্রথম আলো

জড়িত পাঁচ ভাড়াটে খুনি, আ.লীগের দুই পক্ষ একে অপরকে দুষছে
তারিখ: ১৮-০৩-২০১০

যশোরে ছাত্রলীগের নেতা রিপন হোসেন ওরফে দাদা রিপনকে হত্যা করেছে ভাড়াটে পাঁচ খুনি। নেপথ্যে ছিল স্থানীয় আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী কোনো না কোনো নেতার হাত। আওয়ামী লীগের বিবদমান দুই পক্ষের নেতারাই এ বিষয়ে একমত। তাঁরা পৃথক সংবাদ সম্মেলন করে তা দাবিও করেছেন। তবে উভয় পক্ষই দুষছে একে অন্যকে। উভয় পক্ষই খুনিদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবি করেছে।

সূত্র: প্রথম আলো

প্রান্ত থেকে কেন্দ্র একই অবস্থায় ছাত্রলীগ
তারিখ: ১৮-০৩-২০১০

ইডেন কলেজে ভর্তি-বাণিজ্য, যশোর জেলা সম্মেলনে গুলি-বোমা, হবিগঞ্জে পাল্টাপাল্টি কমিটি গঠন, ঢাকা কলেজে সংঘর্ষ—সব মিলিয়ে আবারও উল্টো পথে ছাত্রলীগ। প্রান্ত থেকে কেন্দ্র পর্যন্ত ছাত্রলীগের সবখানেই একই চিত্র। ছাত্রলীগের অভ্যন্তরীণ কোন্দল, কমিটি গঠন ও ভর্তি-বাণিজ্যসহ নানা কারণে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এখনো অস্থিতিশীল অবস্থা বিরাজ করছে। এসব ব্যাপারে জানতে চাইলে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি মাহমুদ হাসান বলেন, সারা দেশে নতুন কমিটির মাধ্যমে সংগঠনকে গোছানোর চেষ্টা চলছে। এ ছাড়া খুব শিগগিরই সম্মেলনের মাধ্যমে নতুন কমিটি হবে।

সূত্র: প্রথম আলো

তিন কোটি টাকার কাজ আ.লীগ নেতাদের মধ্যে ভাগাভাগি!
তারিখ: ১৮-০৩-২০১০

নাটোরে লটারি না করে স্থানীয় সরকার প্রকৌশল বিভাগের (এলজিইডি) প্রায় তিন কোটি টাকার কাজ আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের মধ্যে ভাগাভাগি করে দেওয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে। সাধারণ ঠিকাদারেরা এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী, স্থানীয় সরকারমন্ত্রী ও এলজিইডির প্রধান প্রকৌশলীর কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন। গত মঙ্গলবার সকালে ঠিকাদারেরা নাটোর প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে স্বচ্ছ প্রক্রিয়ায় লটারির মাধ্যমে কাজ পুনর্বণ্টনের দাবি জানিয়েছেন।

সূত্র: প্রথম আলো

মুহুর্মুহু গুলি-বোমা বিস্ফোরণের পর যশোরে ছাত্রলীগের সম্মেলন পণ্ড
রিখ: ১৪-০৩-২০১০

যশোর শহরে গতকাল শনিবার রাতে বেশ কয়েকটি বোমার বিস্ফোরণ ও মুহুর্মুহু গুলিবর্ষণের পর জেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন পণ্ড হয়ে গেছে। এ ঘটনায় জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক শরীফ আবদুর রাকিবসহ (৫০) সাত-আটজন আহত হয়েছেন।

সূত্র: প্রথম আলো

ছাত্রলীগের আন্দোলনে তিন মাস বন্ধ, ভর্তি পরীক্ষাও হচ্ছে না
তারিখ: ১৩-০৩-২০১০

চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি অ্যান্ড এনিমেল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয়ের অচলাবস্থা এখনো কাটেনি। প্রায় তিন মাস ধরে বন্ধ ক্লাস-পরীক্ষা। স্থগিত হয়ে আছে ভর্তি পরীক্ষাও। ক্যাম্পাসে অবস্থান করে আন্দোলনকারী ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা শিক্ষক ও কর্মচারীদের হুমকি দিচ্ছেন। এসব ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ ও একজন শিক্ষক থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেছেন।

সূত্র: প্রথম আলো

মালিক-শ্রমিকদের নামে বেপরোয়া চাঁদাবাজি
তারিখ: ১১-০৩-২০১০

রাজধানীর বাস টার্মিনাল ও বাসস্ট্যান্ডগুলোতে প্রভাবশালী ব্যক্তিদের আশ্রয়-প্রশ্রয়ে মালিক-শ্রমিক সমিতির চাঁদাবাজি চলছেই। গত এক বছরে চাঁদা আদায়ের কর্তৃত্ব প্রতিষ্ঠা নিয়ে বেশ কয়েকবার সংঘাত হয়েছে। চাঁদাবাজির প্রতিবাদে গত ছয় মাসে মালিকেরা দুবার রাজধানীতে বাস চলাচল বন্ধ করে দেন।

সূত্র: প্রথম আলো

ছাত্রলীগ নেত্রী নিয়োগ পাননি, তাই শিক্ষককে তালা!
তারিখ: ০৮-০৩-২০১০

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের নেতা-কর্মীরা গতকাল রোববার এক শিক্ষককে তালাবদ্ধ করে প্রায় আধা ঘণ্টা একটি কক্ষে আটকে রেখেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। পরে প্রক্টর গিয়ে তালা ভেঙে ওই শিক্ষককে উদ্ধার করেন। অভিযোগ রয়েছে, বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের এক নেত্রীকে প্রভাষক পদে নিয়োগ না দেওয়ায় সংগঠনের নেতা-কর্মীরা ওই শিক্ষককে তালাবদ্ধ করে আটকে রাখেন। এমনকি ওই নেত্রীকে নিয়োগ দেওয়া না হলে ক্যাম্পাস অচল করে দেওয়া হবে বলে উপাচার্যকে হুমকি দেন তাঁরা।

সূত্র: প্রথম আলো

বখাটে যুবকের হাতে দুই ছাত্রী লাঞ্ছিত, প্রশাসন ভবনে তালা
তারিখ: ০৮-০৩-২০১০

ময়মনসিংহে অবস্থিত বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে গত শনিবার রাতে বহিরাগত বখাটে যুবকদের হাতে ওই বিশ্ববিদ্যালয়ের দুই ছাত্রী লাঞ্ছিত হয়েছেন। ওই ছাত্রীদের উদ্ধার করতে গিয়ে বখাটেদের মারধরে আহত হন বিশ্ববিদ্যালয়ের আরও ছয়জন ছাত্র। ঘটনার সঙ্গে জড়িত যুবকদের গ্রেপ্তার ও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে রাতেই শিক্ষার্থীরা ক্যাম্পাসে বিক্ষোভ মিছিল করেন।

সূত্র: প্রথম আলো

মিথ্যুক

Post new comment

  • Allowed HTML tags: <a> <em> <strong> <cite> <code><b><p><h1><h2><h3><ul> <ol> <li> <dl> <dt> <dd><img><object><param><embed>
  • Web page addresses and e-mail addresses turn into links automatically.
  • Lines and paragraphs break automatically.

More information about formatting options

Image CAPTCHA
Enter the characters shown in the image.
Write in Bangla